Breaking News
Home / জাতীয় / দশ বছরে বদলে যাওয়া নতুন এক বাংলাদেশ

দশ বছরে বদলে যাওয়া নতুন এক বাংলাদেশ

সময়ে সমাচার: ১ নভেম্বর ২০১৮

বাংলাদেশ স্বাধীনতার পর থেকে মোট ১০টি সংসদ বসে । ১৯৭১-২০১৮ সালের মধ্যে মোট ১৮ জন সরকার বাংলাদেশকে পরিচালনা করেন। পারস্পরিক বিরোধের কারনে দেশের উন্নয়নে বিশাল ব্যাঘাত ঘটে। উন্নয়নে ব্যাঘাতের প্রধান কারন ছিল স্বল্প সময়ের ব্যাবধানে দেশের সরকার পরির্বতন।তাই তখন কার সময়ের  উন্নয়ন তেমন চোখে পড়ার মত ছিলনা, কিন্তু বর্তমান তার ব্যাতিক্রম। বর্তমান সরকার আমলে দেশের উন্নয়নের স্বর্ণ যোগ বলা হলেও ভূল হবে না,কারন বাংলাদেশ এখন পরিপূর্ন একটি দেশে পরিনত হয়েছে। বর্তমান সরকার শেখ হাসিনার হাতে দীর্ঘ দশ বছরে এ যেন নতুন এক বদলে যাওয়া বাংলাদেশ।

দেশ স্বাধীনতার মহা নায়ক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বপ্ন দেখেছিলেন ক্ষুধা, দারিদ্র, নিরক্ষরতা, শোষণমুক্ত সোনার বাংলা গড়ে তুলার। আজকের সোনার বাংলা যেন তারই প্রতিচ্ছবি। বহিরবিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে তার আপন গতিতে।

দশ বছরে বদলে যাওয়া বাংলাদেশের উন্নয়ন গুলো হাল

  • এ বছর বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধির হার প্রায় ৭ দশমিক ৬৫ শতাংশ।
  • ২০০৯ সালে বাংলাদেশের জিডিপি ছিল ১০০ বিলিয়ন ডলার বর্তমানে তা আড়াইগুণ বেড়ে ২৫০ বিলিয়ন ডলার হয়েছে।

  • বর্তমানে বাংলাদেশে বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ৯ গুণ বেড়ে ৩৩ বিলিয়ন মার্কিন ডলারে উন্নীত হয়েছে।
  • বর্তমানে বাংলাদেশের জনগনের মাথা পিছু আয় ১৭৫২ ডলার হয়েছে, ২০০৬ সালে  ছিল ৫৪৩ ডলার ।
  • তৈরি পোশাক শিল্পে বর্তমানে বাংলাদেশ বিশ্বে দ্বিতীয় বৃহত্তম রপ্তানিকারী দেশ। তাই সরকার কারখানাগুলোকে নিরাপদ ও নিরাপত্তা এবং আর্দশ মানে উন্নীত করার উদ্যোগ গ্রহণ করেছে সরকার, যার ফলে বর্ত।মানে বিশ্বের শীর্ষ সাত পরিবেশবান্ধব গার্মেন্ট এবং টেক্সটাইল কারখানা এখন বাংলাদেশে।
  • বর্তমানে ঔষুধ শিল্প ক্ষেত্রে অমূল পরির্বতন হয়েছে। দেশের উৎপান্ন ঔষুধ দিয়ে স্থানীয় চাহিদার প্রায় ৯৫ শতাং শপূরণ করে এবং ১০০টিরও বেশি দেশে রপ্তানি করে বাংলাদেশ।
  • জাহাজ নির্মাণ শিল্প  বাংলাদেশ এখন পিছিয়ে নেই। স্ক্যান্ডিনেভিয়া দেশগুলো এবং জার্মানিতে সমুদ্রগামী জাহাজ রপ্তানি করছে।
  • বর্তমানে বাংলাদেশের বৈদেশিক রপ্তানি আয় ৩৪ দশমিক ৬৭ বিলিয়ন ডলার দাঁড়িয়েছে। যা ২০০৯ সাল থেকে তিনগুণ বেড়েছে।
  • গ্রামীণ নারী ও শিশুদের চিকিৎসা সেবা ও সু-স্বাস্থ্য নিশ্চিত করতে ১৮ হাজারেরও বেশি কমিউনিটি ক্লিনিকে এবং ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কেন্দ্র স্থাপণ করা হয়েছে্

তথ্য ও প্রযোক্তি খাতে উন্নয়ন

  • সুলভ মূল্যেতে ইন্টারনেট পাওয়া ।
  • ইন্টারনেট স্পিড ৫জি তে রূপান্তর।
  • ১৩টি বিশাল হাই-টেক পার্ক স্থাপনা উদ্যোগ গ্রহন।
  • প্রথম বাংলাদেশের কোনো স্যাটেলাইট মহাকাশে উৎক্ষেপণ, যা বঙ্গবন্ধু -১’ স্যাটেলাইট নামে উৎক্ষেপণ করা হয়।
  • ৬ হাজারের ও বেশি ডিজিটাল সেন্টার স্থাপন কারা হয় এই সরকারের আমলে এবং সাড়ে ৮ হাজার ই-পোস্ট অফিস সেন্টার স্থাপন করা হয়েছে, যার ফলে স্বাধারন মানুষ নিজ নিজ ইউনিয়নের অথবা পৌরসভা থেকে এই সেবা গ্রহন করতে পারে । ডিজিটাল সেন্টার এবং ই-পোস্ট অফিস সেন্টার থেকে জনসধারন প্রায় ২০০ উধিক সেবা পেতে পারে।

 বিদ্যুৎ খাতে সরকারের সাফল্য

  • ২০০৯ সালে আমাদের বিদ্যুৎ উৎপাদন ক্ষমতা ছিলো মাত্র ৩ হাজার ২০০ মেগাওয়াট।
  • বর্তমানে তা ৫ গুণ বেড়ে প্রায় ১৬ হাজার মেগাওয়াটে উন্নীত হয়েছে ।
  • বর্তমানে বাংলাদেশের প্রায় ৯০ শতাংশ পরিবার বিদ্যুতায়নের আওতায় আনা হয়েছে।
  • এখন সরকারের পরিকল্পনা অনুযায়ী ২ হাজার ৪০০ মেগাওয়াটের পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপনের পাশাপাশি আরো কয়েকটি বড় বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপনের কাজ বর্তমান সরকার হাতে নিয়েছে।

নির্মান শিল্প খাতে সরকারের সাফল্য

  • পদ্মা সেতুর মত বিশাল দীর্ঘ্যর সেতু নির্মান যা নিজস্ব অর্থায়নে সোয়া ৬ কিলোমিটার দীর্ঘ পদ্মা বহুমুখী সেতু নির্মাণ করছে বাংলাদেশ।
  • মেট্রোরেল নির্মাণ ।
  • নতুন নতুন সড়ক মহা সড়ক নির্মান এবং মেরামত।

যোগাযোগ খাতে সরকারের সাফল্য

  • বাংলাদেশ ও মিয়ানমারের মধ্যেকার পুরাতন সিল্ক রোড পুনরায় চালুর  পরিকল্পনা করছে সরকার।
  • বাংলাদেশের প্রতিবেশি ভারত ও চীনের মধ্যে যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নয়ন।
  • বি,ম,স,টে,ক আসিয়ান দেশগুলোকেে এক সাথে যুক্ত কারা প্রকল্প।

শিক্ষা খাতে সরকারের উন্নয়ন

  • শিক্ষার্থীদের মরঝে বিনামূল্যে বই বিতরণ
  • শিক্ষার্থীকে এই সরকার ২০ দশমিক ৩ মিলিয়ন উপবৃত্তি এরং মেধাবৃত্তির আওতায় নিয়ে আসেন, যাদের অর্ধেকই নারী শিক্ষার্থী।
  • বিনামূল্যে দ্বাদশ শ্রেনী পর্যন্ত নারী শিক্ষার্থীকে লেখা পড়ার সুযোগ করে দেয়া।
  • প্রতিটি উপজেলায় একটি করে সরকারী উচ্চবিদ্যালয় সরকারী করন।
  • এবং প্রতিটি উপজেলায় কটি করে সরকারী কলেজ সরকারী করন।
  • বাস্তবমুখী শিক্ষা প্রধান
  • সৃজনশীল পদ্ধোতিতে শিক্ষা প্রধান

চাকরী আত্মকর্মসংস্থান খাতে সরকারের উন্নয়ন

  • বিগত দশ বছরে ৯টা বিসিএস পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে।
  • সরকারী চাকারীতে বেতন বৃদ্ধি
  • সকল সরকারী বেসরকারী ব্যাংকে সার্কুলার ও নিয়োগ পরীক্ষা হয়েছে।
  • বিভিন্ন মন্ত্রনালয় ও অধিদপ্তরে চাকরীর বড় বড় সার্কুলার ও পরিক্ষা হয়েছে।
  • বিনামূল্যে আত্মকর্মসংস্থানের জন্য ভিবিন্ন প্রশিক্ষন প্রধান
  • ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার জন্য আইসিটি খাতে আউটসোর্সিং প্রশিক্ষণ প্রধান মাধ্যমে দেশেরে যোব সমাজের ব্যকাত্বর হ্রাস করেন।
  • ক্ষুদ্র ঋণ ও শিক্ষন প্রধানের মাধ্যেমে নতুন নতুন উদ্ভোগক্তা তৈরী প্রকল্প গ্রহন করেন ,যা একটি বাড়ি একটি খামার নামে পরিচিতি। এ প্রকল্পে সহজ সর্তে এবং নাম মাত্র সুদে মাধ্যেমে  ঋণ প্রধান করে থাকেন।
  • বয়স্ক ভাতা প্রধান

 

Check Also

রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা বজায় রাখলে খালেদার মুক্তিতে রাজি সরকার!

সময়ের সমাচার: ৪ নভেম্বর ২০১৮ বহু প্রত্যাশিত ও বহুল আলোচিত সংলাপের মধ্যে দেশের সচেতন নাগরিকসমাজ ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares

xu hướng thời trangPhunuso.vnshop giày nữgiày lười nữgiày thể thao nữthời trang f5Responsive WordPress Themenha cap 4 nong thongiay cao gotgiay nu 2015mau biet thu deptoc dephouse beautifulgiay the thao nugiay luoi nutạp chí phụ nữhardware resourcesshop giày lườithời trang nam hàn quốcgiày hàn quốcgiày nam 2015shop giày onlineáo sơ mi hàn quốcshop thời trang nam nữdiễn đàn người tiêu dùngdiễn đàn thời tranggiày thể thao nữ hcmphụ kiện thời trang giá rẻ